শিক্ষাঙ্গন 

এমবিবিএস ভর্তি: পরীক্ষা শৃঙ্খল করতে নানা কৌশলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

এমবিবিএস ভর্তি: পরীক্ষা শৃঙ্খল করতে নানা কৌশলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

আগামী ১১ অক্টোবর ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষের মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে প্রশ্নপত্র ফাঁস, নকল রোধের মাধ্যমে মেধানির্ভর চিকিৎসক গড়তে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। পাশাপাশি পরীক্ষাকে শৃঙ্খল করতে সার্বক্ষণিক সচেষ্ট রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

জানা গেছে, ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে জটিলতা এড়াতে আসন্ন এমবিবিএস প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন ও উত্তরপত্রে কোনো সেলাই থাকবে না। বিগত বেশ কয়েক বছর যাবত ভর্তি পরীক্ষায় মোট ৮ পৃষ্ঠার সেলাই করা প্রশ্ন ও উত্তরপত্র থাকলেও স্বাস্থ্য অধিদফতর প্রথমবারের মতো এবার এক পাতার (দুই পৃষ্ঠার) মধ্যে প্রশ্ন ও উত্তরপত্র ছাপানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে সেলাই খুলে পৃষ্ঠা হারানোর কোনো ঝুঁকিও থাকবে না।

এছাড়া এবার এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীর প্রত্যেকের জন্য এক সেট করে প্রশ্ন প্রণয়ন করা হবে। পাশাপাশি প্রত্যেক পরীক্ষার্থীর প্রশ্ন হবে ভিন্ন। মাত্র এক পাতার প্রশ্ন ও উত্তরপত্র কোনো প্রেসে ছাপানো হবে না। অত্যন্ত কঠোর গোপনীয়তা রক্ষা করে অধিদফতরের নিজস্ব উদ্যোগে এ দুই পৃষ্ঠার প্রশ্ন ও উত্তরপত্র ছাপানো হবে। ১০০টি প্রশ্ন থাকলেও কোন প্রশ্ন কোথায় বা কত নম্বরে থাকবে তা কোনো পরীক্ষার্থী বুঝতে পারবেন না। এতে করে নকল বা অনিয়ম হওয়ার আশঙ্কা থাকছে না।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, ১১ অক্টোবর (শুক্রবার) রাজধানীসহ দেশের ১৯টি কেন্দ্রে একযোগে অনুষ্ঠিতব্য এ ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে আয়োজন করার জন্য সর্বাত্মক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

অধিদপ্তরের পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. এ কে এম আহসান হাবিব স্বাক্ষরিত বিশেষ বার্তায় বলা হয়, শতভাগ স্বচ্ছতা, নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ও গোপনীয়তা রক্ষা করে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের প্রস্তুতি কার্যক্রম প্রায় সম্পন্ন হয়েছে।

Related posts

Leave a Comment

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com