সারাদেশ 

স্বাস্থ্যসম্মত জীবন গড়ে তোলার আহবান প্রধানমন্ত্রীর

স্বাস্থ্যসম্মত জীবন গড়ে তোলার আহবান প্রধানমন্ত্রীর

স্বাস্থ্য সেবায় বাংলাদেশ অভাবনীয় সাফল্য বয়ে এনেছে। আগে যেখানে দেশের মানুষ ন্যূনতম চিকিৎসা নিতে পারতো না, সেখানে এখন বড় বড় রোগের চিকিৎসাও বাংলাদেশে হচ্ছে। বেশ কয়েক বছর আগেও দেশের মানুষ ক্যান্সারের চিকিৎসা নিতে বহু টাকা খরচ করে দেশের বাইরে গিয়ে চিকিৎসা নিতো। বাংলাদেশে এখন ক্যান্সারের চিকিৎসা হচ্ছে। টাকা খরচ করে এখন আর বিদেশে যাওয়া লাগছে না।

এদিকে ১৬ এপ্রিল, মঙ্গলবার জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ ও জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সর্বজনীন স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে শুধু সরকার একা নয়, সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানকেও এগিয়ে আসতে হবে। তাহলেই আমরা মানুষের ঘরে ঘরে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছাতে পারব। বেসরকারি খাতে হাসপাতাল ও মেডিকেল কলেজ গড়ে তোলার জন্য এবং যন্ত্রপাতি ক্রয়ের ক্ষেত্রে আমরা বিশেষ সুযোগ দিচ্ছি। শিশুদের ইনকিউবেটর মেশিন আনার বিষয়ে ট্যাক্স ফ্রি করে দিয়েছি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান সরকার স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নসহ স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। যার সুফল জনগণ ইতোমধ্যে পেতে শুরু করেছে। চিকিৎসা সেবাকে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে ইউনিয়ন পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবা সম্প্রসারণে যুগান্তকারী উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। স্বাস্থ্য খাতের সাফল্যের স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলাদেশ এমডিজি অ্যাওয়ার্ড, সাউথ সাউথ অ্যাওয়ার্ড ও গ্যাভি অ্যাওয়ার্ডের মতো আন্তর্জাতিক পুরস্কার অর্জন করেছে।’

প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে আরো বলেন, গ্রাম পর্যায়ে সবার জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রতি ছয় হাজার গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর জন্য একটি করে কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত নির্মিত প্রায় ১৪ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিকের কার্যক্রম চালু হয়েছে। প্রায় ১৪ হাজার প্রশিক্ষিত কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারের (সিএইচসিপি) মাধ্যমে সারা বাংলাদেশে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হচ্ছে।’

কমিউনিটি ক্লিনিকে ৩০ প্রকারের ওষুধ বিনা মূল্যে বিতরণ করা হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এ পর্যন্ত ৮৫ কোটিরও বেশি পরিদর্শনের মাধ্যমে গ্রামীণ জনগণ কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণ করেছেন। স্বাস্থ্য খাতে সরকারের এ উদ্যোগ সারা বিশ্বে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছে।’

স্বাস্থ্যের প্রতি সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘শুধু রোগ প্রতিরোধের বিষয়ে নজর দিলেই হবে না। মানুষ যাতে অসুখে না পড়ে সে জন্য সবাইকে স্বাস্থ্য সচেতন হতে হবে। পর্যাপ্ত ব্যায়াম ও স্বাস্থ্যবান থাকার জন্য বিশেষভাবে দৃষ্টি দিতে হবে। কারণ স্বাস্থ্য সুন্দর থাকলে মনও ভালো থাকে। তাই স্বাস্থ্যের প্রতি যত্ন নিন।’

‘স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে নানা উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। পাশাপাশি এ খাতে দক্ষ ও প্রশিক্ষিত জনবল গড়ে তুলতে আরও তিনটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। নতুন নতুন মেডিকেল কলেজ করা হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে সবার আগে নজর দেয়া হচ্ছে শিক্ষার মানের ক্ষেত্রে। কেননা আমরা যা-ই করি, তা মানসম্মত হতে হবে। পর্যায়ক্রমে দেশের প্রতিটি বিভাগে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলা হবে।’

Related posts

Leave a Comment

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com