অপরাধ ও দুর্নীতি 

সাভারের আশুলিয়ায় পোশাক শ্রমিককে তুলে নিয়ে দু’পায়ে গুলি

সাভারের আশুলিয়ায় পোশাক শ্রমিককে তুলে নিয়ে দু’পায়ে গুলি

নাসিমা আক্তার (আশা):

ঢাকার অদূরে সাভারের আশুলিয়ায় পোশাক কারখানার সুপারভাইজার জাহিদুল ইসলাম নামে এক শ্রমিককে দুর্বৃত্তরা তুলে নিয়ে তার দু’পায়ে গুলি করে আহত করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। আহতকে প্রথমে স্থানীয় নারী ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পরে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার সকালে সেখান থেকে তাকে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টারদিকে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি উইলিয়ামস সুয়েটার কারখানার কাজ শেষে জামগড়া বাসায় ফেরার পথে জাহিদুলকে দুর্বৃত্তরা চোখ বেঁধে হোন্ডাযোগে তুলে নিয়ে যায়। পরে জামগড়া রূপায়ন প্রকল্পের খোলা মাঠে নিয়ে তার দু’পায়ে গুলিবিদ্ধ করে ফেলে রাখে।

আহত জাহিদুল পটুয়াখালী জেলার বাসিন্দা। সে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি এলাকার উইলিয়াম সুয়েটার কারখানার সুপারভাইজার হিসেবে কর্মরত। সে আশুলিয়ার জামগড়া মোল্লাবাড়ির আওলাদ মোল্লার নির্মাণাধীন একটি কলোনীতে পরিবার নিয়ে বাস করেন।

এ ব্যাপারে আহতের স্ত্রী মুক্তা আক্তার বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে কারখানা থেকে বাসায় ফেরার পথে জামগড়া এলাকায় পৌঁছলে দু’টি হোন্ডায় ৪/৫জন অজ্ঞাত এসে তার স্বামী জাহিদের গতিরোধ করে। পরে তার চোখ বেঁধে হোন্ডায় তুলে নিয়ে জামগড়া রূপায়ণ প্রকল্পের একটি খোলা মাঠে নিয়ে যায়। সেখানে তার দু’পায়ে গুলি করে ফেলে রাখে। এ সময় তার আর্তচিৎকারে এক রিক্সাচালাক তাকে উদ্ধার করে নারী ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করে এবং বাসায় খবর দেয়। পরে সেখান থেকে নিয়ে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার সকালে উন্নত চিকিৎসার জন্যে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্যে ভর্তি করা হয়।

জানতে চাইলে আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ রিজাউল হক দিপু বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। তবে খবর শুনে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়েছে। কেন, কি কারণে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে পুলিশ তদন্ত করছে।

ঢাকার অদূরে সাভারের আশুলি আক্তার (আশা):য়ায় পোশাক কারখানার সুপারভাইজার জাহিদুল ইসলাম নামে এক শ্রমিককে দুর্বৃত্তরা তুলে নিয়ে তার দু’পায়ে গুলি করে আহত করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। আহতকে প্রথমে স্থানীয় নারী ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পরে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার সকালে সেখান থেকে তাকে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টারদিকে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি উইলিয়ামস সুয়েটার কারখানার কাজ শেষে জামগড়া বাসায় ফেরার পথে জাহিদুলকে দুর্বৃত্তরা চোখ বেঁধে হোন্ডাযোগে তুলে নিয়ে যায়। পরে জামগড়া রূপায়ন প্রকল্পের খোলা মাঠে নিয়ে তার দু’পায়ে গুলিবিদ্ধ করে ফেলে রাখে।

আহত জাহিদুল পটুয়াখালী জেলার বাসিন্দা। সে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি এলাকার উইলিয়াম সুয়েটার কারখানার সুপারভাইজার হিসেবে কর্মরত। সে আশুলিয়ার জামগড়া মোল্লাবাড়ির আওলাদ মোল্লার নির্মাণাধীন একটি কলোনীতে পরিবার নিয়ে বাস করেন।

এ ব্যাপারে আহতের স্ত্রী মুক্তা আক্তার বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে কারখানা থেকে বাসায় ফেরার পথে জামগড়া এলাকায় পৌঁছলে দু’টি হোন্ডায় ৪/৫জন অজ্ঞাত এসে তার স্বামী জাহিদের গতিরোধ করে। পরে তার চোখ বেঁধে হোন্ডায় তুলে নিয়ে জামগড়া রূপায়ণ প্রকল্পের একটি খোলা মাঠে নিয়ে যায়। সেখানে তার দু’পায়ে গুলি করে ফেলে রাখে। এ সময় তার আর্তচিৎকারে এক রিক্সাচালাক তাকে উদ্ধার করে নারী ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করে এবং বাসায় খবর দেয়। পরে সেখান থেকে নিয়ে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার সকালে উন্নত চিকিৎসার জন্যে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্যে ভর্তি করা হয়।

জানতে চাইলে আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ রিজাউল হক দিপু বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। তবে খবর শুনে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়েছে। কেন, কি কারণে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে পুলিশ তদন্ত করছে।

Related posts

Leave a Comment

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com