রাজনীতি 

সবকিছু নিয়ে রাজনীতি করছে বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী

সবকিছু নিয়ে রাজনীতি করছে বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: সবকিছু রাজনীতিকরণ না করার জন্য রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, বিএনপি এবং ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সবসময়ই সবকিছু নিয়ে রাজনীতি করতে চেষ্টা করছে। বনানী অগ্নিকাণ্ডের পর তারা বললেন দেশে কোন গণতন্ত্র নাই এবং সে কারনেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। অগ্নিকাণ্ড ও গণতন্ত্রের মধ্যে সম্পর্ক কি তা আমি জানিনা।

রোববার (৩১ মার্চ) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক আলোচনাসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, যদি বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকতেন তবে ইতিমধ্যে দেশ উন্নত দেশে পরিণত হতো। তবে, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বের কারণে বাংলাদেশ উন্নত দেশের দিকে ধাবিত হচ্ছে।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আসুন আমরা হতাহতদের পাশে দাঁড়াই এবং ভবন নির্মাণকালে নির্মাণবিধি লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে সচেতনতা সৃষ্টি করি। প্রত্যেকেরই উচিত ভবন নির্মাণবিধি লঙ্ঘনকারীদের অপচেষ্টা ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ করা।’

অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে যাওয়া ফ্লোরগুলোর মালিক একজন বিএনপি নেতা। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ইতিমধ্যে তাকে আটক করেছে এবং অন্যান্য অপরাধীদেরকেও আটকের চেষ্টা করছে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি এখন বিএনপি নেতাদের জিজ্ঞাসা করতে চাই, কে দুর্নীতিবাজ? দয়াকরে সবকিছু নিয়ে রাজনীতি করবেন না।’

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনবিসি অনুসারে ভবন নির্মাণের ক্ষেত্রে অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা স্থাপন করা বাধ্যতামূলক, কিন্তু এফআর টাওয়ার নির্মাণের ক্ষেত্রে বিএনবিসি অনুসরণ করা হয় নাই।

তিনি বলেন, ‘সেকারণে ভবন মালিকদের লোভের জন্য বনানী অগ্নিকাণ্ডে অনেক মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। আমি সবাইকে নির্মাণবিধি অনুসরণের জন্য অনুরোধ করছি, যাতে লোভের আগুনে পুড়ে কেউ নিহত না হন।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, অবকাঠামো নির্মাণের সময় সবাইকে অবশ্যই নির্মাণবিধি অনুসরণ করতে হবে এবং ভবন নির্মানের ক্ষেত্রে সচেতন থাকা উচিত।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোল্লা জালাল, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আখতার হোসেন, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভাপতি স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দ সৈনিক রফিকুল আলম, সহ-সভাপতি অভিনেত্রী ফারহানা আমিন নতুন, জোটের সাধারণ সম্পাদক ও মুখপাত্র সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অরুন সরকার রানা, জোটের নেতা কণ্ঠশিল্পী এস.ডি রুবেল, মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বাবলু, আওয়ামী লীগ নেতা মোত্তাছিম বিল্লাহ, লিয়াকত আলী খান, জি.এম আতিক, কণ্ঠশিল্পী বৃষ্টি রাণী সরকার, কন্ঠশিল্পী মাধবী সরকার প্রমুখ।

Related posts

Leave a Comment

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com