অপরাধ ও দুর্নীতি 

ধামরাইয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে ‘পুলিশ ইন্সপেক্টর’ পরিচয়ে চাঁদা দাবি

ধামরাইয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে ‘পুলিশ ইন্সপেক্টর’ পরিচয়ে চাঁদা দাবি

নাসিমা আক্তার (আশা):

ঢাকার অদূরে ধামরাইয়ে ইউনিয়ন পরিষদের এক চেয়ারম্যানের কাছে পুলিশ ইন্সপেক্টর পরিচয় দিয়ে চাঁদা দাবি করেছে। না দিলে খবর আছে বলে হুমকি দিয়েছে। এ ঘটনায় চেয়ারম্যান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন। ঘটনাটির শিকার হয়েছেন উপজেলার রোয়াইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম সামসুদ্দিন মিন্টু।

চেয়ারম্যান সামসুদ্দিন মিন্টু জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে এগারটারদিকে একটি মোবাইল ফোন নম্বর (০১৭৭০৯৬২৮৯০) থেকে পুলিশের ইন্সপেক্টর পরিচয় দিয়ে বলতে থাকেন একটি বিষয়ে আপনার এলাকায় অভিযানে আসছি। এসময় তার (সামুদ্দিন মিন্টু) কাছে রোয়াইল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল আলীম ও ওই ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি খড়ারচড় গ্রামের আবদুল মজিদের মোবাইল ফোন নম্বর চান। এর কিছুক্ষণ পর তিনি মিন্টু চেয়ারম্যানকে জানান, এখনো আমি আপনার এলাকাতেই আছি, ইতোমধ্যে মজিদকে ধরেছি।

এরপর খোশগল্প করার এক পর্যায়ে কিছু টাকা বিকাশে পাঠানোর জন্য অনুরোধ করেন পুলিশের ইন্সপেক্টর পরিচয়দানকারি। কিন্তু মিন্টু চেয়ারম্যান টাকা দিতে অস্বীকার করে। এক পর্যায়ে তার কাছে ৩০ হাজার টাকা দাবি করে। না দিলে তোর খবর আছে বলে হুমকি দেন চেয়ারম্যানকে। এ ঘটনা উল্লেখ করে বৃহস্পতিবার রাতে ধামরাই থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন সামসুদ্দিন মিন্টু।

এ বিষয়ে ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, একটি প্রতারকচক্র এ ধরনের কাজ করে আসছে। তাদের সনাক্ত ও আটক করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল আলীম ও আবদুল মজিদের সঙ্গে মিন্টু চেয়ারম্যানের তেমন একটা সুসম্পর্ক নেই। প্রতারক চক্র এ সুযোগকে কাজে লাগাতে চেয়েছিল বলে অনেকের ধারণা।

Related posts

Leave a Comment

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com