শিক্ষাঙ্গন 

এসএসসি পরীক্ষা শতভাগ প্রশ্নফাঁস মুক্ত রাখতে মাঠ পর্যায়ে সক্রিয় সরকার

এসএসসি পরীক্ষা শতভাগ প্রশ্নফাঁস মুক্ত রাখতে মাঠ পর্যায়ে সক্রিয় সরকার

নিউজ ডেস্ক: মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সরকারের সদিচ্ছা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিশেষ উদ্যোগে এরইমধ্যে সারা দেশ থেকে প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের একাধিক সদস্যদের আটক করা হয়েছে। জানা গেছে, যেকোনো মূল্যে এসএসসি পরীক্ষা শতভাগ শৃঙ্খল করতে বদ্ধপরিকর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও সরকার।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, প্রশ্নপত্র ডিজাইন, প্রশ্নপত্র বিতরণে ডিজিটাল সিস্টেম ব্যবহারসহ শিক্ষা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ওপর নিয়মিত মনিটরিং করার কারণে ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে প্রায় শতভাগ সফল হয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং সরকার।

এদিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন দায়িত্বশীল সূত্রগুলো বলছে, প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রকে হাতেনাতে ধরতে মাঠ পর্যায়ে ছদ্মবেশে সক্রিয় রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। এরইমধ্যে প্রতারক চক্রের বেশকিছু সদস্যদের টার্গেট করে প্রশ্নপত্রসহ হাতেনাতে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আটককৃতদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিগত সময় প্রশ্নপত্র ফাঁসের প্রলোভন দেখিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ভুল পথে ঠেলে দিয়েছে। এছাড়া, এসএসসি পরীক্ষায় সচেতনতা তৈরিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে প্রশ্নপত্র ফাঁসকারী চক্রের ফাঁদে পা না দেয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

সূত্রগুলো আরো জানায়, বিভিন্ন সময়ে সংঘটিত প্রশ্নপত্র ফাঁসের মতো জঘন্য প্রতারণা রোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সতর্ক অবস্থান নিয়েছে। যদি কোনো শিক্ষার্থীর কাছে পরীক্ষার আগে ফাঁস হওয়ার নামে সত্য বা মিথ্যা প্রশ্নপত্র পাওয়া যায়, তাহলে ওই শিক্ষার্থীকেও আইনের আওতায় নেয়া হবে। এতে ওই শিক্ষার্থীর ক্যারিয়ার ধ্বংস হয়ে গেলেও তার দায়দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থী ও তার অভিভাবকদের নিতে হবে। প্রশ্নপত্র ফাঁসের প্রচারণার সঙ্গে বিভিন্ন সময় তৎপর থাকা বেশকিছু ব্যক্তি, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন পেজ, গ্রুপে জড়িতদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজরদারিতে নেয়া হয়েছে। প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোনো ইঙ্গিত কিংবা আভাস পেলেই তাৎক্ষণিকভাবে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের সদস্যদের সন্ত্রাসী হিসেবে বিবেচনা করে কঠোর হাতে দমন করার ব্যাপারেও দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ জন্য শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ সবার সহযোগিতা দরকার বলেও মনে করেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। সবাই ঐক্যবদ্ধ হলে কেউ এমন জঘন্য অপরাধ করার সুযোগ পাবে না বলেও মনে করেন তারা।

Related posts

Leave a Comment

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com