সম্পাদকীয় 

আপনি কিংবা আমি মানুষ নাকি অমানুষ?

আপনি কিংবা আমি মানুষ নাকি অমানুষ?

প্রবীর সিকদার

কোনো সন্তানই তার বাবা মাকে এই বলে তাগিদ দেয় না যে, ‘আমাকে পেটে ধরে পৃথিবীর আলো-বাতাসে নিয়ে আসো, আদর কর, বড় করে তোল!’ তবু যেটা হয় সেটা প্রকৃতির বিধান। প্রকৃতির এই বিধানের সুযোগ নিয়ে কোনো বাবা-মায়েরই এই বলে অহংকার করবার সুযোগ নেই যে, ‘আমরা তোকে পেটে ধরে পৃথিবীতে এনেছি, আদর করে বড় করেছি, পড়াশোনা করিয়েছি!’ বাবা-মা চাইলে ওই সন্তানকে ভূমিষ্ঠ হওয়ার সাথে সাথেই গলা টিপে মেরে ফেলতে পারতেন! তখন মেরে ফেলতে চাইলে শিশুটিও নিজেকে রক্ষা করতে পারতো না! প্রকৃতির অনিবার্য সাহচর্যে সন্তানকে ভালবাসার বাঁধনে এঁটে বাবা-মা তাঁদের দায়িত্ব পালন করেন মাত্র! এটা তাঁদের সহজাত প্রবৃত্তি। যেমনটি তাঁদের বাবা-মায়ের ক্ষেত্রেও হয়েছে! তৃতীয় পক্ষের কেউ দায়িত্ব পালন করা নিয়ে প্রশংসা করতে পারেন, কিন্তু বাবা-মা কখনোই নয়! অনিবার্য এই দায়িত্ব পালন করে বাবা-মায়ের কোনো অহংকার করবার সুযোগ নেই।

আমি জানি, আমার এই অভিমতটি পড়ে অনেকেরই চোখ কপালে উঠবে! আমি এই অভিমতের ভেতর দিয়ে এটাই সকলকে বুঝিয়ে দিতে চাইছি যে, বাবা মায়েরই যেখানে সন্তানের জন্ম ও প্রতিপালন করা নিয়ে অহংকার করবার সুযোগ নেই, সেখানে কি করে কেউ সামাজিক কিংবা রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালন করে অহংকারের ঢেঁকুর তুলবেন! দায়িত্ব পালন মানুষের সহজাত প্রবৃত্তি; সেই সহজাত প্রবৃত্তির প্রকাশ নিয়ে কারো অহংকার করবার কোনো সুযোগ নেই। বরং দায়িত্ব পালন না করলে তিরস্কার শুধু নয়, তার অমানুষ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল হয়। এখন আমাদেরকেই ভেবে দেখতে হবে, আমরা দায়িত্ব পালন করে মানুষ হবো, নাকি দায়িত্ব পালন না করে অমানুষ হবো!

Related posts

Leave a Comment

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com